শাহরাস্তি পৌরসভায় বিভিন্ন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হলেন যারা

শাহরাস্তি প্রতিনিধি : শাহরাস্তি পৌরসভার নির্বাচন ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) সকাল ৮টা হতে বিকেলে ৪টা পর্যন্ত সম্পন্ন হয়েছে। পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে ১৩টি কেন্দ্রে ১৯ হাজার ৮শ ২৩ জন ভোটার ভোটদান কার্যক্রমে অংশ নেয়।

এতে ১নং ওয়ার্ডে ১ হাজার ৬২ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ জয়নাল আবেদীন (উটপাখি)। ৪শ ৪২ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ অহিদুর রহমান (ডালিম)।

২নং ওয়ার্ডে ৬শ ৮০ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন আজাদ হোসেন (উটপাখি)। ৪শ ৯৫ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ বাহার উদ্দিন (পানির বোতল)।

৩নং ওয়ার্ডে ৬শ ১০ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর মকবুল হোসেন (পাঞ্জাবি)। ৪শ ৭২ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ মোশারফ হোসেন (পানির বোতল)।

৪নং ওয়ার্ডে ৬শ ৭৮ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ সাহাব উদ্দিন আলম (পানির বোতল)। ৫শ ৮৮ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ মহসীন পাটোয়ারী (ডালিম)।

৫নং ওয়ার্ডে ৫শ ৬৯ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর প্রহল্লাদ দে (উটপাখি)। ৩শ ৭৩ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ রুস্তম আলী কমিশনার (টেবিল ল্যাম্প)।

৬নং ওয়ার্ডে ৫শ ৬২ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর কাজী মোঃ আঃ কুদ্দুস (পাঞ্জাবি)। ৪শ ৬৫ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ সাদেকুর রহমান (ডালিম)।

৭নং ওয়ার্ডে ৭শ ৫০ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ দেলোয়ার হোসেন (পানির বোতল)। ৪শ ০৬ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বর্তমান কাউন্সিলর মনিরুল ইসলাম (টেবিল ল্যাম্প)।

৮নং ওয়ার্ডে ৬শ ২৫ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ মিজানুর রহমান (উটপাখি)। ৪শ ৮৪ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ ছফি উল্যাহ মিয়াজী (পাঞ্জাবী)।

৯নং ওয়ার্ডে ৭ শ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক কাউন্সিলর মোঃ মিজান মোল্লা (উটপাখি)। ৬শ ৫৩ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ আজাদ হোসেন (পাঞ্জাবী)।

১০নং ওয়ার্ডে ৯শ ৬৩ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর তুষার চৌধুরী রাসেল (পানির বোতল)। ৫শ ২৫ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ আঃ জলিল (পাঞ্জাবী)।

১১নং ওয়ার্ডে ৬শ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ আবুল কাশেম (পাঞ্জাবি)। ৫শ ৭ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোঃ ওহাব আলী পাটোয়ারী (উটপাখি)।

১২নং ওয়ার্ডে ৬শ ৪৯ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন শাহনেওয়াজ (উটপাখি)। ৬শ ৩৭ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ আবুল হোসেন (পানির বোতল)।

সংরক্ষিত ১নং ওয়ার্ডে ১হাজার ৯শ ৯৫ ভোট পেয়ে মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন সাহানা সুলতানা (চশমা)। ১হাজার ৫শ ৮৭ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন হাছিনা বেগম (জবা ফুল)।

সংরক্ষিত ২নং ওয়ার্ডে ২হাজার ২শ ৭ ভোট পেয়ে মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন রাবেয়া বসরী বকুল (চশমা)। ১হাজার ৭শ ৬৩ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন নাসরীন আক্তার (অটোরিক্সা)।

সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ডে ২হাজার ৬শ ৬৫ ভোট পেয়ে মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর রাবেয়া বেগম (টেলিফোন)। ২হাজার ৩শ ২০ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মরিয়ম আক্তার (আনারস)।

সংরক্ষিত ৪নং ওয়ার্ডে ২হাজার ১শ ৫৩ ভোট পেয়ে মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন জাহানারা আক্তার (আনারস)। ১হাজার ১শ ২৯ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন শাহীন বেগম (টেলিফোন)।

 

একই রকম খবর