শ্রীপুরে মুদি দোকানে সন্ত্রাসী হামলা ও লুটপাট, থানায় অভিযোগ

স্টাফ রিপোটার : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর গ্রামের আমির বাজারে মুদি দোকানে সন্ত্রাসী হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় মুদি দোকানদার গিয়াস উদ্দিন তার স্ত্রী ও মেয়ে সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত নয়টায় ২ নং বাকিলা ইউনিয়নের আমির বাজারে দোকান ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন বাদী হয়ে থানায় ৪ জনকে অভিযুক্ত করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার দুপুরে হাজিগঞ্জ থানার এসআই সেলিম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলা ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনার সত্যতা পান।

এসময় পুলিশ ঘটনাস্থলে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীদের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। হামলার শিকার ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী গিয়াসউদ্দিন জানান,শ্রীরামপুর গ্রামের মোখলেসুর রহমানের ছেলে প্রবাসী হান্নান থান বৃহস্পতিবার রাতে দোকানে এসে তিন হালি ডিম কিনে নেয়। এর মধ্যে পাঁচটি ডিম পচা পরেছে বলে দোকানে এসে অভিযোগ করেন। ডিমের দাম ফেরত দেওয়া হলে সে আবারো ডিম চায়।

তাকে ডিম না দেওয়ায় বাকবিতন্ডা সৃষ্টি হয়। পরে তার বাবা ও ভাইদের সাথে বিষয়টি নিয়ে সমন্বয় করে সমাধান করা হয়। কিন্তু রাত ৯ টায় সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন যুবলীগের নেতা ইব্রাহিম খান রনির ছোট ভাই ছাত্রলীগ নেতা সুমন খান দোকানের সামনে এসে ক্ষিপ্ত হয়ে হামলা চালিয়ে মারধর করতে শুরু করে। এ সময় সুমনের সাথে থাকা আরো বেশ কয়েকজন দোকানের ভিতরে প্রবেশ করে ভাঙচুর করে ও টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

ঘটনার পর ওই যুবলীগ নেতা ও তার ভাই এসে আরো উত্তেজিত হয়ে পড়ে। ছাত্রলীগ নেতা সুমন খান আমার স্ত্রী ও মেয়ের উপর হামলা চালিয়ে তাদের আহত করে। আমি এই হামলাকারী ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানাই। পুলিশ ঘটনা তদন্ত করে হামলার ঘটনার সত্যতা প্রমাণ পাওয়ার পর যুবলীগ নেতা রনি ও তার ভাইয়ের বাড়িতে গেলেও তাদেরকে পাওয়া যায়নি।

একই রকম খবর