হাইমচরের নীলকমল চেয়ারম্যানের নির্যাতনের শিকার গৃহকর্মী মনোয়ারা!

চাঁদপুর খবর রির্পোট: চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সউদ আল নাছের ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগ করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী নারী মনোয়ারা বেগম (৩৬) ইউপি চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন।

গত ১৯ মে (বৃহস্পতিবার) রাত সাড়ে ৮ টায় ইউনিয়নের ঈশানবালায় এই ঘটনা ঘটে। পরে তাকে হাইমচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনায় রবিবার ভুক্তভোগী নারী মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে চেয়ারম্যান সউদ আল নাছের, তার মা লুৎফা বেগমসহ প্রায় ৮ জনের বিরুদ্ধে হাইমচর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
মনোয়ারা বেগম হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের মিজান হাওলাদারের স্ত্রী। তিনি ঈশানবালা আশ্রায়ন প্রকল্পের নূরজাহান টিলার ৪৪ নং রুমে থাকেন।

আহত মনোয়ারা বেগম জানান, হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সউদ আল নাছের এর বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করতাম। আমি কয়েক মাসের কাজের টাকা পাইতাম। টাকা চাইলে চেয়ারম্যানের মা লুৎফা বেগম আমাকে থাপ্পড় দেন।

গত বুধবার আমি পুনরায় টাকা চাইতে গেলে চেয়ারম্যানের মা হুমকি-ধমকি দিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়। পরদিন বৃহস্পতিবার আমাকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে চেয়ারম্যান সউদ আল নাছের, তার মা লুৎফা বেগম, রিয়াজ, সলেমান, খোকন, স্বপ্না দেলওয়ার ও তার স্ত্রী নূরজাহান মারধর করে এবং আটকে রাখে।

এ ব্যাপারে কথা বলতে নীলকমল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সউদ আল নাছেরের ব্যবহৃত নম্বরে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে হাইমচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন জানান, ঈশানবালার চেয়ারম্যান সউদ আল নাছের ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এক গৃহকর্মী অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একই রকম খবর