হাজীগঞ্জে গয়েশ্বরের উপস্থিতিতে বিএনপির ‘আঙিনা’ সম্মেলন পন্ড !

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলায় বিএনপির ‘একতরফা’ ‘আঙিনা’ সম্মেলন পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে। ওই সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় উপস্থিত ছিলেন। বিএনপির একটি পক্ষের অভিযোগ, জেলা বিএনপির অনুমতি ছাড়া এ সম্মেলনের আয়োজন করেন জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মমিনুল হক। পুলিশ বলছে, এ সম্মেলনের জন্য পুলিশের অনুমতি নেওয়া হয়নি।

শুক্রবার বেলা ১১টায় সম্মেলনটি পণ্ড করে দেয় পুলিশ। ওই সময় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রেসিডিয়াম সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ বিএনপির একটি পক্ষের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

হাজীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শীর্ষ এক নেতা বলেন, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মমিনুল হক তাঁর একক ক্ষমতাবলে এই সম্মেলনের আয়োজন করেন। হাজীগঞ্জ উপজেলার সোনাইমুড়ি এলাকায় নিজ বাড়ির আঙিনায় বিশাল প্যান্ডেল করে গোপন সম্মেলনের আয়োজন করেন। সম্মেলনের জন্য পুলিশ প্রশাসন ও জেলা বিএনপির কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আগের রাতে গতকাল বৃহস্পতিবার তিনি গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে এনে উপস্থিত রাখেন।

ওই নেতা দাবি করেন, অনুমতি ছাড়া ‘গোপনে একতরফা আঙিনা সম্মেলনের’ খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানা-পুলিশ গিয়ে সম্মেলন পণ্ড করে দেয়। তাৎক্ষণিকভাবে নেতা-কর্মীরা সেখান থেকে সরে গেলেও পুলিশ অবস্থান করছে। তিনি আরও দাবি করেন, এর আগেও মমিনুল হক কয়েকবার চেষ্টা করে স্থানীয় সাবেক সাংসদ এম এ মতিনসহ স্থানীয় বিএনপিকে বিভক্ত করেন। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ চাঁদপুর জেলা বিএনপিসহ হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি বিএনপির বেশির ভাগ নেতা-কর্মী।

চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক বলেন, ‘মমিনুল হক তাঁর বাড়িতে আমাদের কারও কোনো অনুমতি ছাড়া একতরফা সম্মেলন আয়োজন করেন। এতে বিএনপির অনেক নেতা-কর্মী বিভ্রান্ত হয়ে বিষয়টি আমাদের জানান। আমরা এ ব্যাপারে দলের শীর্ষ পর্যায়ে জানিয়েছি।’

মমিনুল হক জানান, ‘ঘরোয়া’ আয়োজন ছিল বলে পুলিশকে অবহিত করেননি। তিনি বলেন, ‘আমি ঘরোয়া পরিবেশে বাড়ির আঙিনায় সম্মেলনের আয়োজন করি। এ জন্য পুলিশকে বিষয়টি জানাইনি। তবে জেলা বিএনপিকে লিখিতভাবে জানিয়েছি । জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদকেও জানিয়েছি। তাঁকে বিশেষ অতিথি রাখা হয়েছিল।’

হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, ‘অনুমতি ছাড়া এ সম্মেলন কেউ করতেও পারে না, পারবে না।’
চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ সার্কেল) আফজাল হোসেন বলেন, ‘আমরা শুনেছি, অনুমতি ছাড়া মমিনুল হক একটি সম্মেলন আয়োজন করেন। তা বন্ধ রাখতে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।’

একই রকম খবর