হাজীগঞ্জে ঘটে যাওয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শনে সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন

সাইফুল ইসলাম সিফাত : গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে পরিদর্শন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি,চট্টগ্রাম রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন।

এ সময় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ নেতৃবৃন্দ এই ঘটনার সঠিক বিচার চান। এ সময় সাংবাদিকদের এ ঘটনা সম্পর্কে একটি প্রেস ব্রিফিং করেন জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি ও পুলিশের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন।

জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি বলেন, পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছে। আমি মনে করি আমাদের বিরোধী শক্তি এর সাথে জড়িত। যেহেতু দেশের স্থীতিশীল অবস্থা আছে। আমাদের প্রতিপক্ষ দল রাজনৈতিকভাবে কিছু করতে পারছেনা। তারা ধর্মীয় সম্প্রতি বিনস্ট করে এক ধরনের অস্থিতিশীর পরিস্থিতির সৃস্টি করতে চাচ্ছে। আমরা চাঁদপুরসহ দেশের যে সমস্ত জায়গায় এ ধরনের হামলার ঘটনার জন্য কাউকে ছাড় দেবনা।

চট্টগ্রাম রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন চার জনের মৃত্যুর কথা স্বীকার করে বলেন,আমাদের পুলিশ আত্মরক্ষার জন্য গুলি করতে বাধ্য হয়েছে। আমরা চাঁদপুরসহ বিভিন্ন জেলায় ঘটে যাওয়া এসব ঘটনা তদন্ত করছি। যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন,আমরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিট্রেটের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত টিম গঠন করেছি। তারা আগামী ৭দিনের মধ্যে এঘটনার একটি প্রতিবেদন দেবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি ইকবাল হাসান,চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ,পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ,জেলা আওয়াম লীগ সাধারণ সম্পাদক আবু নইম দুলাল পাটোয়ারীসহ প্রশাসন ও জেলা উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ।

এদিকে একই সময় বিজিবির উপস্থিতিতে পুলিশের গুলিতে নিহত চার সদস্যের লাশ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

একই রকম খবর