হাজীগঞ্জে ডাকাতিকালে বাগাদীর খোকন আটক

হাজীগঞ্জ প্রতিনিধি : হাজীগঞ্জের বাকিলায় কৌশলে ডাকাতি করে পালিয়ে যাবার সময় স্থানীয়রা খোকন (৪০) নামে এক ডাকাতকে আটক করেছে। তবে ডাকাত দলের অন্যরা ঐ পরিবারের কয়েক লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে গেছে।

ঘটনাটি ঘটে শনিবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টার দিকে উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের পশ্চিম সন্না গ্রামের মরহুম ইব্রাহিম মিলিটারীর বাড়িতে। আটক খোকন চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী গ্রামের মৃত ছাদেক গাজীর ছেলে খোকন গাজী।

ঘটনার পর পর ভোর বেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ সার্কেল) আফজাল হোসেন ও পিবিআই সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ডাকাতির শিকার ইব্রাহিম মিলিটারীর ছেলে হাবিবুর রহমান তার স্ত্রীর বরাত দিয়ে  জানান, ঘটনার রাতে আমি লঞ্চে ঢাকা থেকে বাড়ি আসার সময় পথে থাকতেই বাড়িতে ডাকাতি হওয়ার খবর পাই। বাড়িতে এসে দেখি এক ডাকাতকে আটক করেছে স্থানীয়রা। তখন আমার স্ত্রীর কাছ থেকে জানতে পারি আমাদের টিনশেড ঘরের সামনের জানালা ভেঙ্গে ডাকাতদল ঘরে ঢুকে আমার স্ত্রীকে বেঁধে স্বর্ণালঙ্কার, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে নেয়।

এরপর তারা আমার স্ত্রীকে দিয়ে বাচ্চার অসুখের কথা শুনিয়ে আমার বড় ভাইয়ের বিল্ডিংয়ের দরজা খুলতে বলে। বাচ্চার অসুখের কথা শুনে আমার ভাবীরা বিল্ডিংয়ের দরজা খুলতেই ডাকাতদলের কয়েক সদস্য ঘরে প্রবেশ করে লুটপাট শুরু করে।

এ সময় বিল্ডিংয়ে বসবাসকারী আমার বড় ভাবী (মাসুদের স্ত্রী) তার রুমের দরজা বন্ধ করে ভাইয়ের কাছে সিঙ্গাপুরে ফোন দেন। সেখান থেকে বড় ভাই (মাসুদ ভাই) বাড়ির পাশের কয়েকজনকে ফোন দিলে আশপাশের লোকেরা এগিয়ে আসতে থাকে। আর তখনই ডাকাতরা ডাকাতির মালামালসহ পালিয়ে যাওয়ার সময় একজনকে ধরে ফেলে এলাকার লোকজন। এরপরেই সড়কের উপর স্থানীয়রা ডাকাত খোকনকে গণপিটুনী দেয়।

হাবিবুর রহমান আরো জানান, এ ঘটনায় ডাকাতরা নগদ প্রায় দেড় লাখ টাকা, স্বর্ণ প্রায় ৬ ভরি ও ৩টি মোবাইল নিয়ে যায়। সকালে পুলিশ এসে ডাকাতদের ব্যবহৃত কিছু মালামাল উদ্ধার করেছে।

এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মান্নান জানান, খবর পেয়ে আমরা ভোরবেলা ঘটনাস্থলে পেঁৗছে জনতা কর্তৃক আটক ডাকাতকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসি। বিষয়টি নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েয়ের প্রস্তুতি চলছে ও তদন্ত চলছে। অপর এক প্রশ্নে এই কর্মকর্তা বলেন, আটককৃত ডাকাতের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও কয়েকজনের নাম পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে আমাদের কাজ চলছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ সার্কেল) আফজাল হোসেন  জানান, ওই বাড়িতে পুরুষ ছিলো না এমন তথ্যের ভিত্তিতে ডাকাতদল ডাকাতি সংঘটিত করে। এদের মধ্যে একজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ডাকাতদের ব্যবহৃত দা, সাবল ও জুতা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার তদন্তে পিবিআই আমাদেরকে সহযোগিতা করছে।

একই রকম খবর

Leave a Comment