হাজীগঞ্জে ৯৯৯ ফোন করে ধর্ষক চাচাকে পুলিশে দিল জনতা

স্টাফ রির্পোটার : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ভাতিজিকে ধর্ষণের অভিযোগে চাচাকে আটক করে ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশের হাতে তুলে দেয় জনতা।

শনিবার (৩১ জুলাই) দুপরে উপজেলার ৬নং বড়কূল পূর্ব ইউনিয়নের মোল্লাডহর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, মোল্লাডহর নোয়া বাড়ীর আব্দুস সোবাহানের ছেলে দুই সন্তানের জনক আ. রশিদ (৩৫) পাশ্ববর্তী চাচাতো ভাই মীর হোসেনের ১৪ বছরের মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ধর্ষিতার মা জানান, আমাদের নতুন বাড়ির চারপাশে বর্ষার পানি। শনিবার দুপুরের দিকে ঘরে আমার কিশোরী মেয়েকে রেখে নৌকা যোগে গ্রামের দোকানে বাজার করতে যাই। এ সুযোগে আমার মেয়েকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে দেবর রশিদ। আমি ঘরে ফিরে মেয়ের দিকে তাকালে সে আমাকে জড়িয়ে হাউমাউ করে কেধেঁ উঠে সকল ঘটনা খুলে বলে। পরে তার বাবাকে খবর দিয়ে আমরা গ্রামবাসীকে জানাই।

স্থানীয়, ইসমাইল ও আলমগীর হোসেন বলেন, আমরা শুনে ঘটনাস্থলে যাই এবং ধর্ষককে আটকে রাখি। তবে আমরা যাওয়ার পূর্বে মেয়েটির বাবা ৯৯৯ ফোন করে জানালে পুলিশ রাত ৯ টার দিকে আসলে আমরা ধর্ষককে হাতে তুলে দেই।

হাজীগঞ্জ থানার উপ- পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন বলেন, ট্রিপল নাইনের কোলে ঘটনাস্থলে এসে সত্যতা পাই। পরে ধর্ষকসহ ভিকটিমকে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে থানায় নিয়ে আসি।
হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হারুনুর রশিদ জানান, ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। আসামীকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

একই রকম খবর