হাজীগঞ্জ কিউসি টাওয়ারের জেনারেটর বিস্ফোরণ

স্টাফ রিপোর্টার : হাজীগঞ্জ বাজারের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ১২তলা সুপার মার্কেট কাতার কানাডা টাওয়ারের গোডাউনে জেনারেটর বিস্ফোরণ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে জেনারেটর অপারেটর জসিম গুরুতর ভাবে আহত হয়। হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার পর লাইনম্যান জসিম জেনারেটর চালু করতে গেলে এ দুর্ঘটনার সৃষ্টি হয়। হঠাৎ করে আগুনের সূত্রপাত ঘটলে কিউসি টাওয়ারের স্টাফরা মিলে অগ্নি নিয়ন্ত্রক গ্যাসের মাধ্যমে আগুন নিবানোর চেষ্টা চালায়। এতে গোডাউনের তার, কাঠুনসহ দেওয়ালের কাঠের অংশ আগুন লাগলে ফায়ার সার্ভিসের দল পুরোপুরি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। তবে প্রথমে গোডাউনেরর ভিতরে কালো ধোয়ার কারনে দমকল বাহিনীর লোকজন কাজ করতে বেগ পেতে হয়। এতে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পায় টাওয়ারটি।

কাতার কানাডা টাওয়ারের নিচে আন্ডারগাউন্ডটি মূলত গাড়ী পার্কিং রাখার ব্যবস্থা। এমন সুরক্ষিত ভবনে দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে মার্কেটের ব্যবসায়ী ও আবাসিক ভাড়াটিয়াদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কাতার কানাডা টাওয়ারের মালিক সুমীর লাল দত্ত্ব বলেন, আমাদের নিজস্ব আগুন নিয়ন্ত্রকের মাধ্যমে প্রথম অবস্থায় আগুন নেভাতে প্রয়োগ করেছি। পরে ফায়ার সার্ভিস আসলে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রনে আসে। আমরা ফায়ার সার্ভিসের পরামর্শে নিচের বিষয়টি নিয়ে ভাবতেছি।

হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ষ্টেশন প্রধান মো. রুবেল মিয়া বলেন, কাতার কানাডা আন্ডারগ্রাউন্ডের ভিতরে আমরা সময়মত উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে পেরেছি। তবে তেমন বড় ধরনের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

আগুনের খবর শুনে হাজীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক হায়দার পারভেজ সুজন, স্থানীয় কাউন্সিলর রিটন চন্দ্রসহ বাজারের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। এছাড়া বাজারের পথচারীসহ হাজার মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যায়। পরে পুলিশের উপস্থিতেতে টাওয়ারের সামনের পরিবেশ স্বাভাবিক হয়।

একই রকম খবর